March 5, 2024

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

বগুড়ায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ও হাইটেক পার্ক নির্মাণ করা হলে বেকার যুবক-যুবতী কর্মস্থানের সুযোগ

এমদাদুল হক, বগুড়া: বগুড়ায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ও হাইটেক পার্ক নির্মাণ। হাইটেক পার্ক নির্মাণে জমি পরিদর্শন করে তার প্রস্তাবনা প্রদান করা হয়েছে। প্রায় পাঁচ একর জমির উপর নির্মাণের পর এই হাইটেক পার্কে দুই হাজারের বেশি বেকার যুবক-যুবতী কর্মস্থানের সুযোগ পাবে। প্রতি বছর ট্রেনিং নিয়ে অন্যান্য বেকাররাও গড়তে পাড়বে আইটি ক্যারিয়ার।

বগুড়া জেলা প্রশাসক এর কার্যালয় থেকে জানা যায় বগুড়া-৬ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য রাগেবুল আহসান রিপুর আবেদনের প্রেক্ষিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ও হাইটেক পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। হাইটেক পার্ক নিমাণের জন্য প্রয়োজনীয় জমি নির্বাচনের নির্দেশ প্রদান করেন। সেই হিসেবে বগুড়া জেলা শহরের শাখারিয়া ইউনিয়নের বিল নুরইল এলাকায় সরকারি খাস জমির পাঁচ একর জমি প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করা হয়েছে।

হাইটেক পার্ক নির্মাণের জন্য জমি পরিদর্শন করেন বগুড়া-৬ (সদর) সংসদ সদস্য রাগেবুল আহসান রিপু, বগুড়া জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম, বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সফিক, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফিরোজা পারভীনসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা। জমি নির্বাচনের পর প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। এই হাইটেক পার্কের জন্য নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে প্রাথমিকভাবে প্রায় ১০০ কোটি টাকা।

এটি নির্মাণ হলে বগুড়া জেলার সরাসরি দুই হাজারের বেশি বেকার যুবক-যুবতী আইটি বিষয়ক কর্ম খুঁজে পাবে। আইটি বিষয়ক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে নিজের বেকারত্ব দূর করতে পারবে। থাকবে ফ্রিল্যান্স এর বিষয়াদি। এই প্রতিষ্ঠান থেকে আইটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ পেয়ে দক্ষতা অর্জনের পর কেউ ইচ্ছে করলে সেখানে নিজের আইটি ফার্ম বা কোম্পানি গড়ে তোলার অনুমোদনও পাবে।

দুই হাজার যুবক যুবতীর কথা বলা হলেও এর সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে আরো দুই হাজার মানুষ কাজ করবে। ফ্রিল্যান্সাররা বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ পাবেন। কম্পিউটারে আগ্রহীদের নিয়ে বিশেষ কিছু সেমিনার থাকবে এবং শিক্ষিত বেকারদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিয়ে আইটিতে অভিক্ষ করে গড়ে তোলা হবে। প্রশিক্ষণের পর ফ্রিল্যান্সিং, সফটওয়্যার তৈরি করা, ওয়েব পেজ মেকিংসহ আইটিতে এগিয়ে যেতে পারে সে বিষয়েও সহযোগিতা করা হবে প্রতিষ্ঠান থেকে। পরে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরাই স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে এক ধাপ এগিয়ে যাবে।

বগুড়া জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে বগুড়ায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ও হাইটেক পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এটি নির্মাণ হলে বগুড়ার বেকারে কর্মসংস্থান খুঁজে পাবেন। সেই কর্মে অন্যাদের নিয়োগ দিতে পারবেন। এতে করে বগুড়া অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাবে।

বগুড়া-৬ (সদর) সংসদ সদস্য রাগেবুল আহসান রিপু জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হাইটেক পার্কের বিকল্প নেই। সেই কারণে নিজে উদ্যোগ গ্রহণ করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এর কাছে আবেদন করেছি।
সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে জমি নির্বাচন করার প্রক্রিয়া চলছে। প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী দ্রুত সময়ের মধ্যে বগুড়ায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ও হাইটেক পার্ক নির্মাণের যাবতীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।

বগুড়ায় এটি নির্মাণ হলে জেলার অসংখ্যা বেকার যুবক যুবতী নিজেরাই কর্মসংস্থান খুঁজে পাবে। আইটি বিষয়ে দক্ষ জনগণ গড়ে উঠবে। আইটি বিভাগের দক্ষ জনশক্তি যখন দেশের কাজে নিজেকে বিলিয়ে দেবেন তখনই বাংলাদেশ হবে

Print Friendly, PDF & Email